ঘরোয়া পদ্ধতিতে মেছতা দূর করার উপায়

ঘরোয়া পদ্ধতিতে মেছতা দূর করার উপায়

আসলামুআলাইকুম, Blog Academy এর পক্ষ হতে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম। সাধারনত মেছতা দূর করার উপায় সম্পর্কে মেয়েরা বেশি সচেতন, নারীরা সব সময়ই সৌন্দর্যপ্রেমী হয়। নিজেদের সৌন্দর্য ঠিকঠাক রাখতে সবসময় নারীরা বদ্ধপরিকর। নিজেদের সৌন্দর্য সুরক্ষায় সবসময় নারীরা বিভিন্ন ধরণের প্রসাধনী ব্যবহার করে আসছে। তবে, নানা ধরণের প্রসাধনীর ব্যবহার এর ফলে নারীরা তাদের প্রকৃত সৌন্দর্য হারাচ্ছে। অনেক সময় বিভিন্ন ধরণের প্রসাধনী ব্যবহার এর কারনে মেছতা দাগ হয়ে থাকে। আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় মেছতা দূর করার প্রাকৃতিক উপায় এবং প্রসাধনীর ব্যবহার।

মেছতা দূর করার উপায় সম্পর্কে জানার আগে জেনে আসি দ্রুত ব্রণ দূর করার কার্যকরী উপায় ঘরোয়া পদ্ধতিতে

মেছতা কি?

প্রথমত আমাদের জানা দরকার মেছতা কি। মেছতা হলো এক ধরনের কালো ছোপ ছোপ দাগ, যা আমাদের চেহারায় , গালে, চোখের নিচে , কপালে দেখা যায় । মুখের মধ্যে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ছোপ ছোপ দাগ মেছতা নামে পরিচিত সবার কাছে। মেছতা ছেলে অথবা মেয়ে উভয় ক্ষেত্রে হতে পারে। মেছতা দেখা দিলে আমরা চিন্তায় পরে যাই কিভাবে মেছতা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তখন আমরা ভালো মন্দ না বুঝে বিভিন্ন প্রকার প্রসাধনী ব্যবহার করা শুরু করি যা আমাদের উপকারের থেকে ক্ষতি বেশি করে থাকে। সব ধরনের প্রসাধনী সবার ত্বকের জন্য যেমন উপযুক্ত নয়, ঠিক তেমনি করে সকল প্রসাধনী সবার ত্বকের জন্য মানানসই ও নয় । নানান রকমের প্রসাধনীর ব্যবহারের কারনে আমাদের ত্বকের উপরে মেছতা দাগ হতে পারে।

মেছতা কি
মেছতা কি ও মেছতা দূর করার উপায়

মেছতা শরীরের কোথায় দেখা যায়?

মেছতা এমন একটি জটিল সমস্যা যা আমাদের ত্বকের স্বাভাবিক সৌন্দর্য নষ্ট করে। মেছতার প্রাদুর্ভাব আমাদের শরীরের নানান অংশে সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। তবে শরীরের বিভিন্ন অংশের তুলনায় আমাদের ত্বকে সব চেয়ে বেশি ক্ষতি দেখা যায়।গালে মেছতার দাগ সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। তাছারাও, নাকের উপরে কিংবা গলায়,ঘাড়ে মেছতা হয়ে থাকে।

 

কোন বয়সে মেছতা হয়?

ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের মেছতা বেশি হয়, এবং এটা বিভিন্ন কারনে হয়। তার মধ্যে অন্যতম হলো হরমোনজনিত কারণে। সাধারনত ২০ থেকে ৪০ বছর বয়সীদের ভেতর মেছতা বেশি দেখা দেয়।

 

ত্বকে কি রকম প্রভাব ফেলে মেছতা ?

মেছতা এমন একটি সমস্যা যা আমাদের ত্বকের উপর বেশি বিরূপ প্রভাব ফেলে। মেছতার যখন হয়, তখন আমাদের ত্বকের ছোপ ছোপ দাগ পড়ে যায় যা স্থায়ী দাগ হিসেবে আমাদের ত্বক এ রয়ে যেতে দেখা যায়। মেছতার প্রভাবে আমাদের অনেক বিপত্তির মধ্য দিয়ে যেতে হয়।

 

মেছতা সাধারণত কি কারনে হয় তা সঠিক ভাবে আজ পর্যন্ত কেউ খুঁজে পায় নি। তবে বংশগত নানা ধরণের সমস্যা, গর্ভধারণ, জন্মনিয়ন্ত্রণ, প্রচন্ড সূর্যের আলো, ছাড়াও আরও নানা ধরণের সমস্যার পার্শ প্রতিক্রিয়ার ফলেও আমাদের ত্বকে মেছতা দেখা যায়।

 

তবে যাদের মেছতা ত্বকের উপরে বাহিরের অংশে হয়ে থাকে তাদের ক্ষেত্রে মেছতা অনেক সময়ই ভালো হয়ে যায়। কিন্তু যাদের ক্ষেত্রে ত্বকের ভেতরের স্তরে মেছতার সমস্যা হয়, তাদের ক্ষেত্রে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় পুরোপুরি মেছতা দাগ দূর হতে।

 

মেছতা দূর করার উপায়গুলো কি কি?

মেছতা এমন একটি সমস্যা যা আস্তে আস্তে আমাদের ত্বকের স্বাভাবিক সৌন্দর্য নষ্ট করে দিতে পারে। তাই কম বেশি সবাই মেছতার সমস্যা নিয়ে অনেক দুশ্চিন্তায় থাকে। মেছতা হলেই সবাই ভাবতে থাকে কিভাবে মেছতা দূর করা যায়। তাই আপনার ও চিন্তার কোন কারন নেই আমরা আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব কি কি উপায়ে আপনি মেছতা থেকে পরিত্রাণ পাবেন।

সাধারণত মেছতা দুই ধরণের উপায় এ দূর করা যায়। যথাঃ

  • প্রাকৃতিক উপায়
  • বিভিন্ন প্রসাধনীর ব্যবহার

 

প্রাকৃতিক ভাবে ঘরোয়া পদ্ধতিতে মেছতা দূর করার উপায়

এখনও অনেক মানুষ যে কোন ধরণের সমস্যা হলে প্রথমে প্রাকৃতিক উপাদানের কথা ভাবতে থাকে। কোন ধরণের পার্শপ্রতিক্রিয়ার ভয় থাকে না বলে প্রাকৃতিক উপাদানের মাধ্যমে আমরা সহজেই মেছতা দূর করার চেষ্টা করি। যার ফলে মানুষ মেছতার সমস্যা মোকাবিলায় প্রাকৃতিক উপাদান এর ব্যবহার বেশি করে থাকেন। প্রাকৃতিক উপাদান এর ব্যবহার করলে একটু ধীর গতিতে কাজ করলেও তা যেকোনো সমস্যা সমাধানে অনেক কার্যকরি।

মেছতা দূর করার বিভিন্ন উপকরণ
মেছতা-দূর-করার-বিভিন্ন-উপকরণ

মেছতা সমস্যা সমাধানের প্রাকৃতিক উপাদান এর ব্যবহারঃ

  • আপনি মেছতা সমস্যা সমাধান করতে মুখে নিয়মিত লেবুর রস ব্যবহার কর‍তে পারেন। মেছতার সমস্যা থেকে প্রাকৃতিক উপায়ে পরিত্রাণ পেতে পারেন, প্রতিদিন নিয়ম করে দুই বার লেবুর রস ব্যবহার করুন।
  • আপনি গ্লিসারিনের সাথে গুড়া দুধ মিশিয়ে আপনার ত্বক এ লাগাতে পারেন। এটা নিয়মিত ত্বকে ব্যবহার করলে আপনি উপকার পেতে পারেন।
  • আলুর পেস্ট করে এর সাথে এলোভেরা পানি মিশিয়ে ত্বক এ লাগালে ভালো উপকার পাবেন।
  • এছাড়াও মধুর এবং আমন্ড তেল এক সাথে মিশিয়ে ত্বক এ লাগালে উপকার পেতে পাবেন।
  • মধুর সাথে কমলালেবুর খোসা ছাড়িয়ে তা গুঁড়ো করে মিশিয়ে মেছতাতে লাগাতে পারেন। ভালো উপকার পাবেন।
  • মেছতার দূরীকরণ এ সামান্য ভিনেগার লেবুর রসের সাথে প্রতিদিন নিয়ম করে মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। এটা নিয়মিত ত্বকে ব্যবহার করলে আপনি উপকার পেতে পারেন।
  • কলার খোসা মুখে আলত করে ঘসে উপকার পেতে পারেন।

 

প্রসাধনী ব্যবহার করে মেছতা দূর করার ঘরোয়া উপায় বিস্তারিত

যুগ যুগ ধরে নারীদের সৌন্দর্য রক্ষায় প্রসাধনীর ব্যবহার করে আসতেছে। আমরা অনেকেই আছি যারা সময়ের অভাবে অথবা নানা ব্যস্ততার কারনে প্রাকৃতিক উপাদান তৈরি করতে হিমশিম খাই , এছাড়া কারো কারো ক্ষেত্রে পরিশ্রম করে প্রাকৃতিক উপাদান তৈরি করতে নারাজ। এ কারনে তাদের ক্ষেত্রে মেছতা দূর করার সহজ উপায় হলো প্রসাধনীর ব্যবহার। আমরা সাধারণত মেছতা দুরীকরণে বিভিন্ন রকমের ক্রিম ব্যবহার করে থাকি। আপনাদের সামনে আজ আমি মেছতা দুরীকরণের কিছু প্রদাধনী সম্পর্কে আলোচনা করব যেগুলো ব্যবহার করলে মেছতা হতে পরিত্রাণ পেতে পারেন।

 

MELANYC Cream

আপনি যদি খুব বেশি মেছতার সমস্যায় ভুগতে থাকেন, আপনার যদি মেছতা দাগ কি ভাবে দূর করবেন এটা নিয়ে অনেক দুশ্চিন্তা হয়, এবং মেছতা দূরীকরণ এর জন্য বিভিন্ন প্রকারের ক্রিম খুঁজে থাকেন তাহলে ব্যবহার করতে পারেন MELANYC Cream ক্রিমটিকে। মেছতা দূর করার উপায় ক্ষেত্রে বেশ কার্যকর উপাদান। MELANYC Cream এর প্রত্যেকটি উপদান এমন ভাবে রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি এই ক্রিম ৩০দিন নিয়ম করে সঠিক ভাবে ব্যবহার করলে ত্বক থেকে সকল মেছতা জনিত সমস্যা সহজে সমাধান করতে পারবেন।

 

Hydroquinone Cream

মেছতা দাগ দূর করা সহ ত্বকের নানা জটিল ধরনের সমস্যা সমাধানে এই ক্রিমটি বেশ কার্যকরী। আপনি যদি মেছতার সমস্যা দূর করার জন্য কার্যকর কোনো সমাধান খোঁজে থাকেন তাহলে Hydroquinone ক্রিমটি হতে পারে আপনার জন্য মেছতা দূর করার উপায় এবং কার্যকর একটি সমাধান।

 

মেছতা আউট ক্রিম

আজকাল কমবেশি সকল বয়সী মানুষ মেছতার সমস্যায় ভুগে থাকে। কিন্তু মেছতা কি ভাবে সহজে দুর করা যায় তার সঠিক কোন সমাধান কেউ পায়না। তাছাড়া মেছতার ক্রিম অনেকটাই ব্যয়বহুল যার ফলে সাধারণ মানুষের পক্ষে এই ক্রিম কেনা সব সময় সম্ভব হয় না । কিন্তু যদি আপনি নিজেদের সাধ্যের মধ্যে মেছতার সমস্যা সমাধান করার জন্য কোন ভালো ক্রিম খুঁজে থাকেন তাহলে সহজে কিনতে পারেন এই ক্রিমটি। এই মেছতা আউট ক্রিমটি আপনাকে ভালো ফলাফল দিবে। সেই সাথে মেছতার সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে কাজে দিবে।

 

পুরুষের মেছতা দূর করার সহজ উপায়

অনেকে মনে করে থাকেন যে মেছতার মতো সমস্যাটি শুধুমাত্র মেয়েদের ই হয়ে থাকে। কিন্তু মেছতা সমস্যা যে ছেলেদেরও হয় তা অনেকেরই জানেই না। মেছতা এমন একটি সমস্যা যা ছেলে মেয়ে উভয় পারে।

 

  • পুরুষ মানুষের শরীরের ত্বক নারীদের ত্বক এর তুলনায় কিছুটা ভারী হয়। তাই পুরুষের ত্বক এ মেছতা সম্পূর্ণও ভাবে দূর কর‍তে চাইলে প্রথমে.লেবুর রস করে নিয়ে তার সাথে চিনি মিশিয়ে মেছতা যুক্ত অংশে প্রতিদিন ব্যবহার কর‍লে ভালো ফলাফল পেতে পারেন।
  • এছাড়াও পুরুষের ত্বক এ মেছতার সমস্যা সমাধানে চন্দন গুড়া,লেবুর রস এবং এগুলোর সাথে অল্প পরিমাণ গ্লিসারিন যুক্ত করে মেছতার সমস্যা দূর করতে অনেক উপকার পাওয়া যায়।
  • পুরুষের ত্বকের সমস্যা সমাধানে কমলালেবু গুড়ো করে সামান্য গ্লিসারিন এবং মধুর এক সাথে মিশিয়ে এটি ছেলেরা ত্বকে ব্যবহার করলে অনেকটা উপকার পেতে পারেন।

 

পুরুষের ত্বকের মেছতার সমস্যা দূর করতে ঘরোয়া এই সকল উপাদান ব্যাবহার এর পাশাপাশি কিছু ক্রিম ব্যবহার করা উত্তম। তাই পুরুষের ত্বকের মেছতা দূর করতে পারেন Melacare ক্রিম। এটি ছেলেদের মেছতা দূরীকরণে খুব কার্যকর ভূমিকা পালন করে থাকে। এই ক্রিমটির নিয়মিত ব্যবহারে খুব সহজে পুরুষদের মধ্যে যাদের ত্বক এ মেছতার সমস্যা রয়েছে তারা ত্বক থেকে মেছতার সমস্যা দূর করতে পারবেন।

নিচের ভিডিওটি তে পুরুষের মেছতা ও কালো দাগ দূর করার উপায় বিস্তারিত আলোচনা করে একজন বিশেষজ্ঞ।

 

মেছতা থেকে বেছে থাকতে সতর্কতাঃ

আশা করি বুঝতেই পারছেন মেছতা হওয়ার আগে বা মেছতা হওয়ার পরে আমাদের কিছু সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। যাতে করে মেছতা আমাদের ক্ষেত্রে প্রকট আকার ধারন করতে না পারে। চলুন জেনে নেওয়া জাক- কি কি সতর্কতা আমরা মেনে চলব ।

 

  • সূর্যের প্রচন্ড আলো বা তাপ থেকে দূরে থাকা।
  • আগুনের তাপ থেকে দূরে থাকা।
  • সতর্কতার সাথে প্রসাধনী ব্যবহার করা।
  • ধুলো ময়লা থেকে ত্বক কে রক্ষা করা।
  • মুখে সব সময় হাত না লাগানো।
  • মূখে কোন কিছু দিয়ে জোরে না ঘসা।
  • মুখে ক্যামিকেল বা রঙ ব্যবহার না করা।
  • মুখে খার জাতীয় সাবান ব্যবহার না করা।

 

পরিশেষে বলতে চাই

তো উপরের আলোচনার মাধ্যমে আমরা বুঝতে পারি যে মেছতা আজকাল ভয়ানক আকারে আক্রমণ করছে নারী-পুরুষ ভেদে সকলের স্কিনে। তাই সময় থাকতে আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। যারা বহুদিন যাবত মেছতা ও মেছতা দাগ সমস্যায় ভুগছেন, কোন কিছুতেই কাজ হচ্ছে না, তারা আর দেরি না করে কোন অভিজ্ঞ ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন। অথবা মেছতা দেখা দিলে উল্লিখিত পদ্ধতি সমূহ গ্রহণ করে মেছতা দূর করার উপায় বা সমাধান পেতে পারেন খুব সহজে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *